Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

এ পর্যন্ত যত রাজনৈতিক হত্যাকান্ড হয়েছে তার প্রত্যেকটির জন্য বিএনপি দায়ী :মাহাবুব উল আলম হানিফ


প্রকাশের সময় : ১ বছর আগে
এ পর্যন্ত যত রাজনৈতিক হত্যাকান্ড হয়েছে তার প্রত্যেকটির জন্য বিএনপি দায়ী :মাহাবুব উল আলম হানিফ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: বাংলাদেশ আওয়ামীলীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক মাহাবুব -উল আলম হানিফ বলেছেন এ যাবৎ যত রাজনৈতিক হত্যাকান্ড হয়েছে তার প্রত্যেকটির জন্য বিএনপি দায়ী। তিনি বলেন আমরা ভেবেছিলাম সন্ত্রাস কমে গেছে, কিন্তু না লক্ষ্মীপুরে এক যুবলীগ নেতা হত্যাকান্ডের মাধ্যমে বিএনপি প্রমাণ করেছে যে তাদের সন্ত্রাসীরা এতদিন ঘাপটি মেরে বসেছিল।
আন্দোলনের নামে সারাদেশে এখন বিএনপি’র সন্ত্রাসীরা মাথাছাড়া দিয়ে উঠেছে। তারা একের পর এক সংঘাত, সহিংসতায় অরাজকতা সৃষ্টি করে চলেছে। তিনি আরোও বলেন, “বিএনপি’র ছত্রছায়ায় খুনি ও সন্ত্রাসীরা দেশের যে প্রান্তেই থাকুক তাদের খুঁজে বের করে এনে বিচারের কাঠগড়ায় দাঁড় করিয়ে শাস্তি নিশ্চিত করা হবে। যাতে আর কোন মায়ের বুক খালি না হয়। আর কোন পুত্র যেন পিতা হারা না হয়।”
সোমবার (১০ অক্টোবর) সকালে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের রশিদপুরে আওয়ামীলীগের এক প্রতিবাদ সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। সম্প্রতি স্থানীয় যুবলীগ নেতা আলাউদ্দিন পাটওয়ারী সন্ত্রাসীদের হাতে নিহত হওয়ার ঘটনায় এ প্রতিবাদ সভা আয়োজন করা হয়।
বশিকপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগ ও সহযোগী সংগঠনের ব্যানারে অনুষ্ঠিত সভায় জেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিঙ্কুর সভাপতিত্বে আরোও উপস্থিত ছিলেন কেন্দ্রীয় আওয়ামীলীগের সাংগঠনিক সম্পাদক আব সাইদ আল মাহমুদ স্বপন, কৃষি বিষয়ক সম্পাদক ফরিদুন্নাহার লাইলী, ত্রাণ ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক সুজিত রায় নন্দী, নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি প্রমুখ।
এর আগে নিহত যুবলীগ নেতা আলাউদ্দিনের কবর জিয়ারত ও শ্রদ্ধাঞ্জলী অর্পণ এবং শোকাহত পরিবারের মাঝে সমবেদনা জানিয়ে ৩ লাখ টাকার চেক হস্তান্তর করা হয়।
প্রসঙ্গত: লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়ন যুবলীগের সভাপতি আলাউদ্দিন পাটওয়ারী(৪৫) দুর্বৃত্তদের গুলিতে নিহত হয়েছে। শুক্রবার(৩০ সেপ্টেম্বর) রাত সাড়ে ৯ টার দিকে সদর উপজেলার বশিকপুর ইউনিয়নের রশিদপুর পোদ্দার দিঘীর পাড়ে দুর্বৃত্তরা তাকে লক্ষ্য করে কয়েক রাউন্ড গুলি করে হত্যা করে।
এ ঘটনায় নিহতের ছেলে বাদি হয়ে চন্দ্রগঞ্জ থানায় অজ্ঞাত ২০ জনসহ যুবদল ও ছাত্রদলের ১৪ জনের নাম উল্লেখ করে মামলা দায়ের করে। মামলার ৫ নম্বর আসামীকে পুলিশ গ্রেফতার করলেও অন্যদের এখনো গ্রেফতার করতে পারেনি আইন শৃঙ্খলা বাহিনী।