Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

কমলনগরে হাজিরহাট ফাঁড়ির কাজ শুরু


প্রকাশের সময় : ২ মাস আগে
কমলনগরে হাজিরহাট ফাঁড়ির কাজ শুরু

কমলনগর প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরের কমলনগরের হাজির হাট তদন্ত কেন্দ্র (ফাঁড়ি থানা)’র নিজস্ব ভূমিতে মাটির কাজ শুরু হয়েছে । উপজেলার চর মার্টিনের চৌধুরী বাজার এলাকায় তদন্ত কেন্দ্রের নিজস্ব ৪৮শতাংশ ভূমিতে মাটি এবং বালু ভরাটের কাজ শুরু হয়েছে।
কমলনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাহ উদ্দিন আহমেদ বাপ্পি তত্ত্বাবধানে ও স্থানীয় চর কালকিনি ইউপি চেয়ারম্যান মো.ছাইফ উল্লাহ ওই কাজ দেখ ভাল করেন।
কমলনগর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান মেজবাহ আহমেদ বাপ্পি জানান, আমাদের নিজস্ব অর্থ দিয়ে মাটির কাজ শুরু করতে ছায়েফ উল্লাহ চেয়ারম্যানকে বলেছি। তিনি এখন কাজ করাচ্ছেন। আমরা পরবর্তীতে ওই কাজের বিল পরিশোধ করে দিবো। আগামী তিন মাসের মধ্যে হাজির হাট তদন্ত কেন্দ্র(ফাঁড়ি থানা)’র কাজের সমাপ্তি করতে পুলিশ প্রশাসনের পক্ষে নির্দেশ রয়েছে।
প্রসঙ্গত, গত ২০০৭-০৮ সালে উপজেলার উত্তর-পশ্চিমে আইন শৃঙ্খলার উন্নয়ন দৃশ্যমান করতে চৌধুরী বাজারে ইউপি ভবনের দুটি রুমে ফাঁড়ি থানার কার্যক্রম শুরু হয়। ইউপি ভবনের জরাজীর্ণ অবস্থার কারণে দীর্ঘদিনের পরিকল্পনায় জনগণের দেয়া ৪৮ শতাংশ ভূমিতে কাজ চলছে।
স্থানীয় বাসিন্দারা জানান, উপজেলার উত্তর-পশ্চিমে মেঘনার নদী বহমান। দীর্ঘ সময়ে চর কালকিনি, চর মার্টিন, চর লরেন্স এলাকায় আইন শৃঙ্খলার অবনতি ছিল। পরে প্রশাসনের পক্ষে চৌধুরী বাজারে ফাঁড়ি থানার কার্যক্রম শুরু হয়। এতে খুব দ্রুত সময়ে এসব এলাকায় আইন শৃঙ্খলার উন্নতি শুরু হয়। দীর্ঘ সময়ের দাবিতে যতেষ্ট ভূমিকা রাখে ফাঁড়ি থানা ইনচার্জগণ।
ফাঁড়ি থানা ইনচার্জ মনিরুল ইসলাম বলেন, যে ভবনে ফাঁড়ি থানার কার্যক্রম চলছে, সেটি খুবই জরাজীর্ণ অবস্থায় রয়েছে। যেকোন সময় ঝুঁকিতে থাকতে হয়। বিষয়টি উপরে মহলে জানালে স্থানীয়রা থানার নিজস্ব ভূমিতে ফাঁড়ি থানা ভবন করে দেয়ার আপাতত প্রতিশ্রুতি দেয়। স্থানীয় চর কালকিনি ইউপি চেয়ারম্যান মো.ছাইফ উল্লাহ’র নেতৃত্বে বালু ও মাটি ভরাটের কাজ চলছে। এখন দেখা যাবে তারা কতটুকু করতে পারে। কাজ শেষ হলে নতুন ভবনে কার্যক্রম চলবে