Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

পাইলসের স্থলে শিশুর জিহ্বা অপারেশন করল লক্ষ্মীপুরের ডাক্তার আরজু


প্রকাশের সময় : ১ বছর আগে
পাইলসের স্থলে শিশুর জিহ্বা অপারেশন করল লক্ষ্মীপুরের ডাক্তার আরজু

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে পাইলস অপারেশনের পরিবর্তে আরিয়ান নামের দুই বছরের এক শিশুর জিহ্বা অপারেশন করার অভিযোগ উঠেছে অধ্যাপক ডা. জামাল সালেহ উদ্দিন (আরজু) নামের এক চিকিৎসক বিরুদ্ধে। শুক্রবার দুপুরে ডা. আউয়াল শিশু সার্জারি সেন্টার ও জেনারেল হাসপাতালে এ ঘটনা ঘটে। পরে বিষয়টি জানাজানির পর ভুক্তভোগী স্বজনরা ও হাসপাতালের লোকজনের মধ্যে হৈ চৈ পড়ে যায়। এ ঘটনার ক্ষতিপূরনসহ বিচার দাবী করেন ওই রোগীর স্বজনরা। হাসপাতালে উত্তেজনা সৃষ্টি হলে পুলিশ এসে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। এসময় ভুল করার বিষয়টি স্বীকার করে ক্ষতিপূরনের আশ^াস দেন ওই চিকিৎসক।
জানা যায়, সদর উপজেলার টুমচর গ্রামের বাসিন্দা নিজাম উদ্দিন ও তার স্ত্রী লিপি আক্তার তাদের শিশু সন্তান আরিয়ান পাইলস সমস্যায় ভুগছেন জানিয়ে হাসপাতালে ছুটে আসেন।

চিকিৎসক (শিশু সার্জারী) জামাল সালাহ উদ্দিনকে দেখানোর পর শুক্রবার বেলা ১১টার দিকে হাসপাতালে শিশুটিকে ভর্তি করানো হয়। দুপুরে শিশু আরিয়ানকে নিয়ে যাওয়া হয় অপারেশন থিয়েটারে।

এসময় তার জিহ্বা অপারেশন করেন চিকিৎসক। পরে ভূল চিকিৎসার কথা জানতে পারেন স্বজনরা। এসময় বিক্ষুব্ধ হয়ে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষকে বিষয়টি জানান তারা।
ঘটনাটি জানাজানির পর তোলপাড় শুরু হয় সর্বত্রে। খবর পেয়ে গণমাধ্যমকর্মী ও পুলিশ সদস্যরা ঘটনাস্থলে যায়। এসময় ঘটনার বর্ননা দেন ভুক্তভোগী স্বজনরা। ঘটনার বিচার দাবীসহ ক্ষতিপূরন দাবী করেন তারা।

এব্যাপারে জানতে চাইলে অভিযুক্ত চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. জামাল সালেহ উদ্দিন বিষয়টি ভূলে হয়েছে স্বীকার করে বলেন, তাদের (রোগীর স্বজনদের) চাহিদা অনুযায়ী ভবিষ্যতে শিশুর যে কোন ধরণের ক্ষতিপূরন দেয়ার আশ^াস দেন।

এদিকে সিভিল সার্জন ডা. আহম্মদ কবির জানান, একজন চিকিৎসকের এ ধরণের ভুল অপারেশন হওয়া উচিত না, বিষয়টি তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়া হবে বলে জানান তিনি।
জানা যায় অধ্যাপক ডা. জামাল সালেহ উদ্দিন (শিশু সার্জারী) চাঁদপুর মেডিকেল কলেজে অধ্যক্ষ হিসেবে কর্মরত।