Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

পিতা হত্যার ন্যায় বিচার চেয়ে পুত্রের সংবাদ সম্মেলন


প্রকাশের সময় : ৮ মাস আগে
পিতা হত্যার ন্যায় বিচার চেয়ে পুত্রের সংবাদ সম্মেলন

(মৌলভীবাজার) প্রতিনিধি: মৌলভীবাজারের জুড়ীতে জমি সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে ৪ ভাইয়ের মারামারিতে বড় ভাই আব্দুল হামিদ কালা নিহত হন। নিহত ব্যাক্তির ছেলে আপ্তাব উদ্দিন পিতা হত্যার বিচার চেয়ে সোমবার (৩ জুলাই) বিকাল ৫টায় জুড়ী প্রেসক্লাবে সংবাদ সম্মেলন করেছেন। আপ্তাব উদ্দিন অভিযোগ করেন, ‘গত ২৭ জুন মঙ্গলবার আমার তিন চাচা মাস্টার আব্দুল জলিল, ফারুক আহমদ ও আব্দুল খালিক জমি সংক্রান্ত বিষয় নিয়ে আমার বাবাকে পিটিয়ে হত্যা করেছেন। এ বিষয়ে আমি বাদী হয়ে জুড়ী থানায় মামলা দায়ের করেছি। ঘটনার এক সপ্তাহ পেরিয়ে গেছে কিন্তু কোন আসামি গ্রেপ্তার হননি।’ আপ্তাব বলেন ‘আমার দাদার শুধুমাত্র ৩০ শতকের একটি বাড়ি ছিল। আমার বাবা প্রায় ২৭ বছর সৌদি আরবে হাড়ভাঙ্গা পরিশ্রম করে সমূহ উপার্জিত টাকা আমার চাচা জলিলের কাছে দেন। এ টাকা দিয়ে আমার চাচারা সহস্রাধিক শতক জমি ক্রয় করেন এবং জুড়ী শহরে বাসা করার জন্য আমার চাচা জমিও ক্রয় করেন। প্রায় পাঁচ বছর পূর্বে আমার বাবা দেশে আসলে টাকা ও জমির হিসাব বুঝিয়ে দেওয়ার জন্য চাইলে চাচারা টালবাহানা করতে থাকেন। একাধিকবার এ বিষয়ে সামাজিকভাবে বৈঠক হলেও কোন বিচারে তারা কথা শুনেননি, উপরন্তু আমাদের বিরুদ্ধে আদালতে মামলা দায়ের করেন। আদালত উভয় পক্ষকে শান্তি বজায়ের লক্ষ্যে নোটিশ জারি করেন। নোটিশ জারির ৫ দিনের মাথায় ৩ চাচা আমার বাবার দখলীয় ভূমিতে জোরপূর্বক হাল চাষ করতে গেলে আমার বাবা বাধা দেন। এমতাবস্থায় বিতর্কের এক পর্যায়ে ৩ চাচা মিলে ঘটনাস্থলে আমার বাবাকে নির্মমভাবে পিটিয়ে মেরে ফেলেন। আমি আইনের আশ্রয় নিয়ে থানায় মামলা দায়ের করেছি। প্রশাসন ও সংশ্লিষ্টদের কাছে আকুল আবেদন অবিলম্বে আসামিদের গ্রেপ্তার করে আমার পিতা হত্যার ন্যায় বিচার করুন।’ এ বিষয়ে জানতে অভিযুক্তদের মুঠোফোনে একাধিকবার চেষ্টা করলেও বন্ধ পাওয়া গিয়েছে। জুড়ী থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মামলার বিষয়টি নিশ্চিত করে জানান, আসামিদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।