Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তির অভিযোগে নোয়াখালীর বিএনপি নেতা ঢাকায় আটক


প্রকাশের সময় : ৯ মাস আগে
প্রধানমন্ত্রীকে কটূক্তির অভিযোগে নোয়াখালীর বিএনপি নেতা ঢাকায় আটক

প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে নোয়াখালীর সেনবাগ উপজেলার ছাতারপাইয়া ইউনিয়ন পরিষদের (ইউপি) চেয়ারম্যান ও উপজেলা বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুর রহমানকে আটক করা হয়েছে। গতকাল শনিবার দিবাগত রাত ৩টার দিকে ঢাকার পল্টনে ইম্পেরিয়াল আবাসিক হোটেল থেকে তাঁকে আটক করে সেনবাগ থানা-পুলিশের একটি দল।

আটক আবদুর রহমান নোয়াখালী জেলা বিএনপির ত্রাণ ও পুনর্বাসনবিষয়ক সম্পাদক পদেও দায়িত্বে আছেন।

সেনবাগ থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. ইকবাল হোসেন পাটোয়ারী প্রথম আলোকে বলেন, আবদুর রহমান বর্তমানে সেনবাগ থানা-পুলিশের হেফাজতে আছেন। প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে নিয়ে কটূক্তির অভিযোগে তাঁর বিরুদ্ধে মামলার প্রক্রিয়া চলছে। মামলার পর তাঁকে গ্রেপ্তার দেখিয়ে আজ রোববার আদালতে পাঠানো হবে।

সেনবাগ থানা-পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যায় সেনবাগের ছাতারপাইয়া বাজারে ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক দলের সাংগঠনিক সভায় বিএনপি নেতা আবদুর রহমান প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তি ও কুরুচিপূর্ণ বক্তব্য দেন বলে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ভিডিও ছড়িয়ে পড়ে। স্থানীয় আওয়ামী লীগ ও এর সহযোগী সংগঠনের নেতা-কর্মীরা প্রধানমন্ত্রীকে নিয়ে কটূক্তির প্রতিবাদে এলাকায় বিক্ষোভ মিছিল ও সমাবেশ করেন। তাঁরা দ্রুত আব্দুর রহমানকে গ্রেপ্তার করে আইনের আওতায় আনার দাবি জানান।

এ বিষয়ে আজ দুপুরে জেলা বিএনপির সাধারণ সম্পাদক আবদুর রহমান প্রথম আলোকে বলেন, ইউপি চেয়ারম্যান ও সেনবাগ বিএনপির যুগ্ম আহ্বায়ক আবদুর রহমান একজন ক্যানসার রোগী। তাঁকে পুলিশ বিনা কারণে ক্ষমতাসীন দলের নেতা-কর্মীদের খুশি করতে আটক করেছে। অথচ তাঁর বিরুদ্ধে কোনো মামলায় গ্রেপ্তারি পরোয়ানা নেই। পুলিশ হয়রানির উদ্দেশে তাঁকে আটক করেছে। অবিলম্বে তিনি আবদুর রহমানের নিঃশর্ত মুক্তি দাবি করেন।