Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

রায়পুরে শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে ৬ জনের নামে মামলা


প্রকাশের সময় : ৩ years ago
রায়পুরে শিশুকে যৌন নির্যাতনের অভিযোগে ৬ জনের নামে মামলা

প্রতিনিধি:লক্ষ্মীপুরের রায়পুরে বখাটে কর্তৃক ৭ বছরের এক শিশুকে যৌন নির্যাতন শিকার হয়েছে। ওই শিশুকে শনিবার সকালে জেলা সদর হাসপাতালে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়েছে। ঘটনার পর থেকে অভিযুক্ত বখাটে খাইয়ুম এলাকা ছেড়ে পলাতক রয়েছে । এঘটনায় শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) রাতে শিশুর পিতা বাদি হয়ে অভিযুক্ত কাইয়ুম ও তার পক্ষের এলাকার কয়েকজন দালালসহ ৬ জনের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করা হয়েছে।
ঘটনাটি ঘটেছে বুধবার রাতে উপজেলার দক্ষিন চরআবাবিল ইউনিয়নের পুর্ব গাইয়ারচর গ্রামে।শুক্রবার (১৭ ডিসেম্বর) রাতে রায়পুর থানার ওসি তদন্ত কার্তিক চন্দ্র দাশ বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন।
শিশুটির মা সাংবাদিকদের জানান,,ঘটনার দিন তার অসুস্থ্য স্বামী ও দুই শিশু সন্তান নিয়ে তাদের টিনশেড বাড়িতে বসবাস। বাসার সামনেই তকদের ছোট চা দোকান রয়েছে। তাদের বাসার পাশেই বখাটে খাইয়ুমের পরিবারের বসবাস। বেশ কয়েকদিন ধরে দোকানে চা খেতে এসে শিশুটির নজরে পড়ে বখাটের। বুধবার সন্ধার পর শিশুটি তাদের দোকানে গিয়ে খাবার নিয়ে বাসায় ফিরছিলো। পথিমধ্যে খাইয়ুম শিশুটিকে সুপারি বাগানে তুলে নিয়ে মুখ বেধে ধর্ষণের চেষ্টা চালায়। এসময় শিশুটি চিৎকার দিলে আঘাত করে খাইয়ুম পালিয়ে যায়। বুধবার রাতে তিনি অসুস্থ স্বামীর জন্য (পা’ ভাঙ্গা) ওষুধ আনতে স্থানীয় মিতালী বাজারে গিয়েছিলেন। এছাড়াও সে বিভিন্ন সময়ে এলাকার শিশুদের যৌন নির্যাতন করে আসছিল।
ক্ষতিগ্রস্থ শিশুর পরিবার পুলিশ হেড-কোয়াটারে ৯৯৯ নাম্বারে ফোন দিয়ে ঘটনাটি জানিয়ে সহযোগিতা চান। পরে তারা রায়পুর থানাকে অবহিত করলে এসআই নাসিম পরিবারকে থানায় যেতে বলেন। কিন্তু স্থানীয় প্রভাবশালী দেলোয়ার সহ তার লোকদের বাধার কারনে থানায় মামলা করতে দেরি হয়েছে বলে শিশুর পিতা জানান।
এঘটনায় অভিযুক্ত খাইয়ুম পলাতক থাকায় বক্তব্য নেয়া যায়নি। তবে তার পিতা মোঃ ইব্রাহিম ঘটনার সত্যতা শিকার করে বলেন, আমার ছেলে ভুল করেছে। ঘটনাটি নিয়েএলাকার কয়েকজন বৈঠকে মিমাংসা করে দিছেন। আমনেরাও মাফ করে দেন।
রায়পুরের হায়দরগঞ্জের ফাঁড়ির এসআই ও মামলার তদন্ত কর্মকর্তা শিপন বড়ুয়া বলেন, শনিবার (১৮ ডিসেম্বর) ওই শিশুকে জেলা সদর হাসপাতালে চেকআপ করা হয়েছে। দরিদ্র শিশুর পিতা বাদি হয়ে অভিযুক্ত কাইয়ুম ও তার এলাকার কয়েকজন দালালসহ ৬ জনের নামে নারী ও শিশু নির্যাতন আইনে মামলা করা হয়েছে।