Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

লক্ষ্মীপরে মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উদ্বোধন


প্রকাশের সময় : ১২ মাস আগে
লক্ষ্মীপরে মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উদ্বোধন

প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরে সদর উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের উদ্বোধন করা হয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার (১৬ মার্চ) সকালে গণবভন থেকে ভার্চুয়াল ভাবে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা মডেল মসজিদ ও ইসলামিক সাংস্কৃতিক কেন্দ্রসহ সারাদেশে ৫০টি মসজিদের শুভ উদ্বোধন করেন।পরে উপজেলা প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশন ও গণপূর্ত বিভাগের সহযোগিতায় আয়োজিত অনুষ্ঠানে জেলা প্রশাসক মো. আনোয়ার হোছাইন আকন্দ সভাপতিত্বে ফিকা কেটে শুভ ঘোষণা করেন লক্ষ্মীপুর-২ আসনের সংসদ সদস্য নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন,সিভিল সার্জন আহাম্মদ কবীর, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, জেলা গণপূর্ত অধিদপ্তরের নির্বাহী প্রকৌশলী লাবণ্য বড়ুয়া, পৌরসভার মেয়র মোজাম্মেল হায়দার মাসুম ভূঁইয়া, সদর উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান এ কে এম সালাহ্ উদ্দিন টিপু,  উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. ইমরান হোসেন, গণপূর্ত অধিদপ্তরের উপবিভাগীয় প্রকৌশলী ফারুক আহমেদ, ইসলামিক ফাউন্ডেশন জেলা কার্যালয়ের উপপরিচালক জাকের হোছাইন প্রমুখ।
এছাড়া জনপ্রতিনিধি, সরকারি বেসরকারি বিভিন্ন বিভাগের কর্মকর্তা ও কর্মচারীসহ স্থানীয় ধর্মপ্রাণ মুসুল্লিরা উপস্থিত ছিলেন।
জানা গেছে, তিন তলা বিশিষ্ট এ মডেল মসজিদে একসাথে ৯০০ মুসুল্লি নামাজ আদায় করতে পারবেন। গণপূর্ত অধিদপ্তরের তত্ত্বাবধানে এর নির্মাণ ব্যয় হয়েছে প্রায় ১৪ কোটি টাকা।
এই মডেল মসজিদ ও ইসলামী সাংস্কৃতিক কেন্দ্রটি মেসার্স ডালি কন্সট্রাকশন এম এ ইঞ্জিনিয়ারিং ( জে  ভি) নামে একটি ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠান মসজিদটি নির্মাণ করেছে।  তিন তলা বিশিষ্ট এ মসজিদটির নিচতলা ১৪০০ হাজার বর্গফুট, ২য় তলা ৯ হাজার বর্গফুট ও ৩য় তলা ৯ হাজার বর্গফুট আয়তন বিশিষ্ট।
শীতাতপনিয়ন্ত্রিত মসজিদটিতে বিশেষ কিছু সুবিধা রয়েছে। সুবিধা গুলো হচ্ছে হজযাত্রীদের প্রশিক্ষণসহ হজ পালনের জন্য ডিজিটাল নিবন্ধনের ব্যবস্থা, নারী ও পুরুষের পৃথক অজুখানা ও নামাজ আদায়ের সুবিধা, প্রতিবন্ধী মুসল্লিদের টয়লেটসহ নামাজের পৃথক ব্যবস্থা, ইসলামিক বই বিক্রয়কেন্দ্র, ইসলামিক লাইব্রেরী, অটিজম কর্নার, ইমাম ট্রেনিং সেন্টার, ইসলামিক গবেষণা ও দ্বীনি দাওয়া কার্যক্রম, কোরআন হেফজখানা, শিশু ও গণশিক্ষা ব্যবস্থা, দেশি-বিদেশি পর্যটকদের আবাসন ও অতিথিশালা, মরদেহ গোসল ও কফিন বহনের ব্যবস্থা, ইমাম-মুয়াজ্জিনের আবাসনসহ সাংস্কৃতিক কেন্দ্রের কর্মকর্তা-কর্মচারীদের জন্য অফিসের ব্যবস্থা।
এছাড়াও রয়েছে নিরাপত্তার জন্য সিকিউরিটি গার্ড রুম এবং সিসি ক্যামেরা। রয়েছে গাড়ি পার্কিংয়ের সুব্যবস্থা।