Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

লক্ষ্মীপুরে অপহরণের দু’দিন পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার


প্রকাশের সময় : ৭ মাস আগে
লক্ষ্মীপুরে অপহরণের দু’দিন পর স্কুলছাত্রী উদ্ধার

প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরের রামগতিতে অপহরণের দুই দিন পর স্কুলছাত্রী তাসমিয়া আক্তার মুনিয়াকে উদ্ধার করেছে পুলিশ। মঙ্গলবার (১২ সেপ্টেম্বর) দুপুরে নোয়াখালী থেকে রামগতি থানা পুলিশ তাকে উদ্ধার করে। তবে অপহরণকারীদের গ্রেপ্তার করতে পারেনি পুলিশ।এদিকে মো. সাগরসহ অপহরণের সঙ্গে জড়িতদের গ্রেপ্তারের দাবিতে চরনেয়ামত জনতা মডেল একাডেমিসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের শিক্ষার্থীরা মাবনববন্ধন ও বিক্ষোভ করে। উপজেলার চরআলগী ইউনিয়নের সুফিরহাট বাজারে ঘন্টাব্যাপী এ কর্মসূচির আয়োজন করা হয়। খবর পেয়ে রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুদ্দিন আনোয়ার ঘটনাস্থল পৌঁছে অপহরণকারীদের গ্রেপ্তারের আশ্বাস দেন আন্দোলনকারীদের।

মানববন্ধনে বক্তব্য রাখেন চর নেয়ামত জনতা মডেল একাডেমির প্রধান শিক্ষক আব্দুল কাদের, চর আলগী ইউনিয়ন ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক নিজাম উদ্দিন, অপহৃত স্কুলছাত্রীর চাচা মো. সোহেল, শিক্ষার্থী মনির হোসেন, মো. ইস্রাফিল ও হাফছা আক্তার মুনিয়া।

মানববন্ধনে স্কুলছাত্রীর চাচা মো. সোহেল জানান, স্কুলে যাওয়া আসার সময় সাগর মুনিয়াকে উত্যক্ত করতো। এনিয়ে তার পরিবারের কাছে অভিযোগ করা হয়। এতে ক্ষিপ্ত হয়ে রোববার (১০ সেপ্টেম্বর) সকাল সাড়ে ৮ টার দিকে স্কুলে যাওয়ার পথে চরনেয়ামত এলাকা থেকে সাগরসহ কয়েকজন মুনিয়াকে অপহরণ করে নিয়ে যায়। এ ঘটনায় থানায় একটি মামলা দায়ের করা হয়েছে। পুলিশ মুনিয়াকে উদ্ধার করেছে। কিন্তু অপহরণকারীদের গ্রেফতার করতে পারেনি। এ ঘটনায় জড়িতদের গ্রেপ্তারসহ বিচারের আওতায় আনার দাবি জানান তিনি।

উদ্ধার হওয়া মুনিয়া চরনেয়ামত জনতা মডেল একাডেমির নবম শ্রেণির ছাত্রী ও চরনেয়ামত গ্রামের মনির হাওলাদারের মেয়ে। অভিযুক্ত সাগর একই এলাকার আকবর মাঝির ছেলে।

রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. সাইফুদ্দিন আনোয়ার বলেন, মুনিয়াকে উদ্ধার করা হয়েছে। তাকে নোয়াখালী থেকে নিয়ে আসা হচ্ছে। ঘটনার সঙ্গে জড়িত কাউকে গ্রেপ্তার করা সম্ভব হয়নি। তাদের গ্রেপ্তারের চেষ্টা চলছে।