Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

লক্ষ্মীপুরে আইনজীবীকে মারধরের মামলায় কারাগারে পৌর কাউন্সিলর


প্রকাশের সময় : ১২ মাস আগে
লক্ষ্মীপুরে আইনজীবীকে মারধরের মামলায় কারাগারে পৌর কাউন্সিলর

প্রতিনিধি : লক্ষ্মীপুরে আনাস কামাল নামে এক আইনজীবীর ওপর হামলা ও মারধরের ঘটনায় লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ১২ নম্বর ওয়ার্ডের কাউন্সিলর রিয়াজ পাটওয়ারী রাজুকে কারাগারে পাঠিয়েছে আদালত। একই মামলায় আরও একজনকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেন দিয়েছেন আদালত। সোমবার (১৩ মার্চ) দুপুরে লক্ষ্মীপুর চীফ জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট (ভারপ্রাপ্ত) মো: ইউসুফের আদালতে আত্মসমর্পণ করে জামিন আবেদন করলে বিচারক তাদের জামিন না মঞ্জুর করে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।
বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন লক্ষ্মীপুর আইনজীবী সমিতির সাধারণ সম্পাদক হাসান মাহমুদ। তিনি জানান, আইনজীবীকে মারধরের মামলার এজাহারভুক্ত আসামি রিয়াজ উদ্দিন রাজু পাটওয়ারী উচ্চ আদালত থেকে ছয় সপ্তাহের আগাম জামিন নিয়েছিলেন। রবিবার (১২ মার্চ) জামিনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় সোমবার (১৩ মার্চ) তিনি আদালতে হাজির হয়ে জামিন আবেদন করেন। আদালত শুনানি শেষে জামিন না মঞ্জুর করে কাউন্সিলর রাজু ও তার ভাই বিপুকে কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন। আইনজীবী আনাস কামাল লক্ষ্মীপুর পৌর ১২ নং ওয়ার্ডের বাসিন্দা কাজী একেএম ফজলুল করিমের ছেলে। তিনি লক্ষ্মীপুর জেলা আইনজীবী সমিতির সদস্য এবং সুপ্রিম কোর্টের আইনজীবী।
মামলা সূত্রে জানা যায়, লক্ষ্মীপুর পৌরসভার ১২নং ওয়ার্ড সমসেরাাদ গ্রামের কাউন্সিলর রাজু আইনজীবী কামালদের বাড়ির জমি দখল করে রাস্তা করেন। গত ২৩ জানুয়ারি সকালে কামালদের জমির ওপর দিয়ে রাস্তা নেওয়ার সময় বাধা দেওয়া হয়। এতে রাজুর ছোট ভাই বিপুর সঙ্গে আইনজীবী কামালের কথা কাটাকাটি হয়। পরে বিপু লোকজন নিয়ে ফের কামালের ওপর হামলা চালায়। এ সময় আশপাশের লোকজন ঘটনাটির ভিডিও ধারণ করে সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম ফেসবুকে ছড়িয়ে দেয়।
ভিডিওতে দেখা যায়- কাউন্সিলর রাজুসহ অভিযুক্তরা কামালকে এলোপাতাড়ি কিলঘুষি দিচ্ছেন। এ সময় স্থানীয় এক ব্যক্তি কামালকে বাঁচানোর চেষ্টা করছেন। এ ঘটনায় ওই দিন রাতে আইনজীবী আনাস কামালের বড় ভাই ওসমান গনি বাদী হয়ে সদর থানায় মামলা দায়ের করেন। মামলায় কাউন্সিলর রিয়াজ উদ্দিন রাজু পাটওয়ারী, তার ভাই বিপু পাটওয়ারী, জহির হোসেন ও নোমানসহ ৫ জনকে বিবাদী করা হয়।