Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

লক্ষ্মীপুরে ডাকাতির ঘটনায় প্রতিবাদে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের আধাবেলা ধর্মঘট পালন


প্রকাশের সময় : ৯ মাস আগে
লক্ষ্মীপুরে ডাকাতির ঘটনায় প্রতিবাদে স্বর্ণ ব্যবসায়ীদের আধাবেলা ধর্মঘট পালন

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুর শহরের আর.কে শিল্পালয় নামে একটি স্বর্ণের দোকানে ডাকাতির ঘটনায় আধাবেলা ধর্মঘট পালন করছে স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। ডাকাতির ঘটনার পর থেকেই শহর জুড়ে থমথমে অবস্থা ও ব্যবসায়ীদের মাঝে আতঙ্ক বিরাজ করছে। বৃহস্পতিবার দুপুরে ঘটনাস্থল পরিদর্শন করেন পুলিশ সুপার মো: মাহফুজ্জামান আশরাফসহ পুলিশের বিভিন্ন ইউনিটের সদস্যরা। এদিকে ব্যবসায়ীদের নিরাপত্তা চেয়ে ও দ্রুততম সময়ে ডাকাতির সাথে জড়িতদের আটকের দাবিতে সদর মডেল থানা ও পুলিশ সুপারের কাছে স্মারকলিপি দেন স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা। এর আগে বুধবার (৭জুন) রাত ৮টার দিকে শহরের সামাদ মোড় এলাকায় বোমা ফাটিয়ে ডাকাতির এ ঘটনা ঘটে। এসময় ডাকাতরা দোকান মালিক অপু কর্মকার ও তার ছেলে অমিত কর্মকারকে কুপিয়ে আহত করেছে।
আহত স্বর্ণ ব্যবসায়ী অপু কর্মকার পৌর শহরের সমসেরাবাদ এলাকার বাসিন্দা। ডাকাতি করে পালিয়ে যাওয়ার সময় তাদের পিকআপভ্যান চাপায় নিহত পথচারী সফিউল্যা পৌরসভার পশ্চিম লক্ষ্মীপুরের ইটেরপুল এলাকার পানাম বাড়ির বাসিন্দা ছিলেন। আহত ইসমাইল হোসেন একই এলাকার বাসিন্দা।

ক্ষতিগ্রস্থ ব্যবসায়ীর স্বজন ও কয়েকজন স্বর্ণ ব্যবসায়ী জানান, পিকআপ ভ্যানযোগে আসা মুখোশধারী ডাকাত দল ককটেল বিস্ফোরণ ঘটিয়ে শহরে আতঙ্ক সৃষ্টি করে। ৭—৮ জনের মুখোশ পরা অস্ত্রধারী ডাকাতদল দোকানের সামনের সড়কে গাড়ি থামিয়ে দোকানে ঢুকেই স্বর্ণালঙ্কার—নগদ টাকা লুট করতে থাকে। এসময় বাধা দিলে ডাকাতরা দেশীয় অস্ত্র দিয়ে ব্যবসায়ী অপু কর্মকার ও তার ছেলে অমিত কর্মকারকে কুপিয়ে আহত করে। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে এসে ডাকাতদলকে ধাওয়া করলে তারা পিকআপভ্যানযোগে পৌর শহরের ইটেরপোলের দিকে দ্রুত পালানোর চেষ্টা করে। এসময় ডাকাতদের বহনকারী দ্রুতগামী পিকআপভ্যানের চাপায় এক পথচারী নিহত ও দুই পথচারী আহত হন। এদিকে পুলিশ ধাওয়া করে ডাকাতের দুই সদস্যকে আটক করে। ঘটনাস্থল থেকে প্রায় ২০টি অক্ষত ককটেল বোমা উদ্ধার করেছে পুলিশ।
বাংলাদেশ জুয়েলার্স সমিতি (বাজুস) লক্ষ্মীপুর শাখার সভাপতি হরিহর পাল বলেন, স্বর্ণ ব্যবসায়ী অপুর অবস্থা আশঙ্কাজনক। তার মাথাসহ শরীরের বিভিন্ন অংশে কুপিয়ে জখম করেছে ডাকাতরা। তার দোকানের সব স্বর্ণালংকার লুট করে নিয়ে গেছে। এঘটনায় পুলিশ দুই ডাকাতকে গ্রেফতার করলেও ব্যবসায়ীদেও এখনো আতঙ্ক কাটেনি। ডাকাতদের গ্রেফতার ও নিরাপত্তা চেয়ে শহরের স্বর্ণ ব্যবসায়ীরা দোকানপাট বন্ধ রেখে আধাবেলা অবরোধ ও প্রশাসনের কাছে স্মারকলিপি দেয়া হয়েছে বলেও জানালেন এই ব্যবসায়ী সংগঠক।

পুলিশ সুপার মো: মাহফুজ্জামান আশরাফ বলেন, ডাকাতির ঘটনায় দুইজনকে ধাওয়া করে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। এসময় ডাকাতির কাজে ব্যবহৃত পিকআপভ্যান জব্দ করা হয়েছে। ঘটনাটি তদন্ত চলছে বলেও জানালেন তিনি।