Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

লক্ষ্মীপুরে পরিবেশকে অশান্ত করছে বিএনপি


প্রকাশের সময় : ৮ মাস আগে
লক্ষ্মীপুরে পরিবেশকে অশান্ত করছে বিএনপি

প্রতিনিধি: গতকাল মঙ্গলবার লক্ষ্মীপুরে সংঘর্ষ চলাকালে দৃবৃর্ত্তদের হাতে সজিব নামে একজন খুন হওয়ার ঘটনার প্রতিবাদ জানিয়ে সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করেছে জেলা আওয়ামলীগ। (১৯ জুলাই) বুধবার বিকেলে দলের সাধারণ সম্পাদকের বাসভবণে এই সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
সম্মেলনে জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু, সাধারণ সম্পাদক এ্যাড: নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন এমপি বক্তব্য রাখেন। তারা বলেন, মঙ্গলবার লক্ষ্মীপুর জেলা শহরে বিএনপির পথযাত্রা ও আওয়ামীলীগের শান্তি সমাবেশ অনুষ্ঠিত হয়। অনুষ্ঠানের শুরু পূর্বে পুলিশের পক্ষ উভয় দলকে কার্যক্রম ও এরিয়া সম্পর্কে অবহিত করা হয়। ে
সই হিসেবে জেলা আওয়ামীলীগ শহরের উত্তর তেমুহনী থেকে মিছিল নিয়ে চকবাজার আসার পর পুলিশ ব্যারিকেট দিয়ে সামনে না যাওয়ার অনুরোধ করলে আমরা পুনরায় উত্তর তেমহনী এলাকায় এসে শেষ হয়। কিন্তু বিএনপি পথযাত্রার নামে দাগী সন্ত্রাসী, খুনসহ বিভিন্ন মামলার আসামীদের ভাড়া নিয়া আসে। নতারা শহরের বিভিন্ন এলাকায় আওয়ামীলীগ ও তাদের সহযোগী সংগঠনের নেতাকর্মী উপর হামলা করে।
হামলায় পৌরসভার ৮ নং ওয়ার্ড আওয়ামীলীগ নেতা অডিট সুমন, দালাল বাজারের মো: ্ইউসুফ, ছাত্রলীগ নেতা শাহাদাত হোসেন, মারুফ, ইমতিয়াজ, কৃষকলীগ নেতা জুনায়েদ, কুশাখালীর আওয়ামীলীগ নেতা আবদুল খালেকসহ ৩০-৪০ জন নেতাকর্মীকে হামলা চালিয়ে আহত করে।
এ ছাড়া কমলনগর উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক অ্যাড: নুরুল আমি রাজু বাসভবণ ও গাড়িতে হামলা চালায়। বিএনপি পথযাত্রার নামে রামগতি সড়কে বিভিন্ন ব্যাক্তি, প্রতিষ্ঠান ও পুলিশের উপর হামলা করে।
নুর উদ্দিন চৌধুরী নয়ন আরও বলেন, কলেজ রোডে মদিন উল্যা হাউজিং এলাকায় সজিব নামে এক ব্যাক্তি কে অজ্ঞাতনামা সন্ত্রাসীরা খুন করে। এ ঘটনায় আওয়ামীলীগ, ছাত্রলীগ কেউ জড়িত নয়। মূলত একজন পথচারী মৃত্যুর ঘটনায় নিজেদের কর্মী দাবী করে নতুন কৌশল করছে বিএনপি। এ ঘটনাসহ প্রতিটা হত্যাকান্ডে সঠিক তদন্ত করে জড়িতদের খুঁজে বের করে শান্তি দাবী করেন। বিএনপি কে লাশের রাজনীতি না করার আহবান জানান।
জেলা আওয়ামীলীগ সভাপতি গোলাম ফারুক পিংকু বলেন, আওয়ামীলীগ শান্তিপূর্ন মিছিল চকবাজার এলাকায় গিয়ে শেষ হয়। পুলিশের দেওয়ার নিয়ম রক্ষা করে আওয়ামীলীগ কর্মসূচি পালন করে। কলেজ রোডে আওয়ামীলীগের কোন নেতাকর্মী যায়নি।
কারা সজিব নামে এক ব্যাক্তিকে হত্যা করেছে প্রশাসন তা খুঁজে বের করবে এমন প্রত্যাশা। বিএনপি ২০১৩ সালের মতো আবার পুনরায় লক্ষ্মীপুর কে অশান্ত করার চেষ্টা করছে। তারা কর্মসূচির নামে মানুষের জানমাল বিনষ্ট করার ষড়ষন্ত্র করছে।