Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

লক্ষ্মীপুরে মহিলা কাউন্সিলের বিরুদ্ধে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ী ও স্ত্রীকে হামলা মারধরের অভিযোগ


প্রকাশের সময় : ১ বছর আগে
লক্ষ্মীপুরে মহিলা কাউন্সিলের বিরুদ্ধে চাঁদা না পেয়ে ব্যবসায়ী ও স্ত্রীকে হামলা মারধরের অভিযোগ

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে ব্যক্তিগত অর্থায়নে গভীর নলকূপ বসাতে গেলে সংরক্ষিত মহিলা কাউন্সিলরকে ২০ হাজার টাকা চাঁদা না দেওয়ায় কার্যালয়ে ডেকে এনে শারীরিক নির্যাতনে অভিযোগে সংবাদ সম্মেলন করে ভূক্তভোগী। আজ মঙ্গলবার (১১ অক্টোবর) দুপুরে শহরের একটি স্থানীয় একটি পত্রিকা অফিসে এই সংবাদ সম্মেলনের আয়োজন করা হয়।
সংবাদ সম্মেলনে লক্ষ্মীপুর পৌরসভার বা ানগর গ্রামের গাছ ব্যবসায়ী মো: জামাল হোসেনের স্ত্রী জোছনা বেগম বলেন, আমাদের ব্যক্তিগত অর্থায়নে গভীর বাড়িতে একটি গভীর নলকূপ বসানোর জন্য শুরু করি। খবর পেয়ে পৌরসভার ১৩,১৪ ও ১৫ নম্বর ওয়ার্ড কাউন্সিলর রাহিমা বেগম এসে আমাদের কাছে ২০ হাজার টাকা চাঁদা দাবি করে।
দাবিকৃত টাকা না পেয়ে গত শনিবার একটি মিথ্যা অভিযোগ এনে তার অফিস কার্যালয়ে হাজির হওয়ার নির্দেশ দেয়। নোটিস পেয়ে ওই দিন আমি তার ব্যক্তিগত কার্যালয়ে ডেকে নিয়ে বেত দিয়ে সবার সামনে প্রকাশ্যে হামলা, মারধর ও অশালীন ভাষায় গালি দেয়।
এসময় আমার স্বামী আমাদের রক্ষা করতে গেলে তাকেও মারধর করে কাউন্সিলর ও তার লোকজন। পরে এ ঘটনায় আমি বাদী হয়ে লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট আদালতে একটি মামলা দায়ের করলে আদালত তদন্ত করে ব্যবস্থা গ্রহনের জন্য জেলা গোয়েন্দা পুলিশ কে নির্দেশ দেয়। হামলা আহত হবার পর আমার স্বজনরা আমাকে ও আমার স্বামীকে সদর হাসপাতালে ভর্তি করে। তিনি এ ঘটনায় প্রশাসনের সুবিচার দাবী করেন।সংবাদ সম্মেলনে মেয়ে রিনা আক্তার, নিলুফা ইয়াসমিন, ঝাল লিপি আক্তার ও রুনা আক্তার উপস্থিত ছিলেন।
এ দিকে অভিযোগের বিষয়ে জানতে চাইলে কাউন্সিলর রাহিমা বেগম তার বিরুদ্ধে আনীত অভিযোগ অস্বীকার করে বলেন তিনি একটি সালিসি বৈঠকে উপস্থিত ছিলেন সেখানে কারোর উপর হামলা ও মারধর করার হয়নি। চাঁদার দাবী বিষয় সঠিক নয়।