Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

লক্ষ্মীপুর মৎস্য খামারের মাছ নিধন : আটক ১


প্রকাশের সময় : ১ মাস আগে
লক্ষ্মীপুর মৎস্য খামারের মাছ নিধন : আটক ১

প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে সাইফুল ইসলাম নামে তরুন উদ্যোক্তার মৎস্য খামারে লক্ষাধিক টাকার মাছ নিধন করার অভিযোগ পাওয়া গেছে। এ ঘটনায় তিনি বাদী হয়ে শাহজাহানের ছেলে শাহাদাত হোসেন সোহান, মোঃ শাকিল খাঁন, নূর মোহাম্মদের ছেলে মোঃ শাহজাহান নামে সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করে। পরে পুলিশ (৩১ জানুয়ারী) সকালে অভিযান চালিয়ে শাহাদাত হোসেন সোহান নামে একজন একজন কে গ্রেফতার করে।
থানা অভিযোগ সূত্রে জানা গেছে, লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার বাঙ্গাখাঁ ইউনিয়নে হোগল ডহরী গ্রামে দেড় একর জলাশয় ইজাড়া নিয়ে অর্গানিক পদ্ধতিতে বিভিন্ন জাতের মাছ চাষ করেন সাইফুল ইসলাম। আসামীরা পূর্ব শক্রতার জেরে পরিকল্পিতভাবে সুইপার দিয়ে (৩০ জানুয়ারী) রাতে নিজেদের টয়লেটের টাংকির সমস্ত ময়লা ওই মৎস্য খামারে ফেলে। এতে পানি দূষিত হয়ে খামারের সব মাছগুলে মারা যায়। এ ছাড়া বিবাদীদের সাথে ওই খামার মালিকের জমি নিয়ে বিরোধ রয়েছে দীর্ঘ দিন থেকে।
সাইফুল ইসলাম অভিযোগ করে বলেন, তিনি দেড় একর জমি ইজাড়া নিয়ে বিভিন্ন জাতের মাছ চাষ করেছেন। রাসায়নিক প্রক্রিয়া ছাড়াই সম্পূর্ণ ব্যাতিক্রম ভাবে অর্গানিক পদ্ধতিতে তিনি মাছের চাষ করেছেন। ছোট-বড় বিভিন্ন প্রজাতির মাছ রয়েছে এ খামারে। বিবাদীদের টয়লেটের সব ময়লা তার এ খামারে ফেলে দেয় এর পর থেকে মাছগুলো মরে ভেসে উঠছে এতে তার লক্ষাধিক টাকার ক্ষতি হয়েছে বলে জানান তিনি।
অভিযোগের বিষয়ে প্রতিপক্ষ শাহাদাত হোসেন ও তার মা জান্নাতুন নাইম টয়লেটের ময়লা ফেলার বিষয়ে স্বীকার করেছেন।
স্থানীয় রহমত উল্যাহ, রিয়াজ উদ্দীন মানিক, ইসমাইল, নূর আলী ও আবু তাহের জানান, এ প্রজেক্টের মাছ আর কখনও মরতে দেখিনি, তবে টয়লের টাংকির ময়লা ফেলার পর হতে সমস্ত মাছ মরে ভেসে উঠছে।
লক্ষ্মীপুর সদর থানার এস আই মোঃ কামাল উদ্দীন জানান, সাইফুল ইসলামের একটি অভিযোগের ভিত্তিতে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য শাহাদাত হোসেন সোহানকে থানা আনা হয়েছে। এ ব্যাপারে পরবর্তী ব্যবস্থা গ্রহন করা হবে।