Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জে যুবলীগ নেতা মামলার পূর্ন তদন্তে পিবিআই


প্রকাশের সময় : ২ years ago
লক্ষ্মীপুর রামগঞ্জে যুবলীগ নেতা মামলার পূর্ন তদন্তে পিবিআই

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধিঃ লক্ষ্মীপুর জেলার রামগঞ্জে যুবলীগ নেতা মাসুদ হত্যা মামলার থানা পুলিশের তদন্ত রিপোর্টের বিরুদ্ধে বাদীর আবেদনের প্রেক্ষিতে লক্ষ্মীপুর চেম্বার জজ আদালত পুলিশ ব্যুরো ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই) নোয়াখালী কে অধিকতর তদন্তের জন্য নির্দেশ দিয়েছে ।
মঙ্গলবার (২১জুন) লক্ষ্মীপুর সিনিয়র জুডিশিয়াল ম্যাজিষ্ট্রেট (রামগঞ্জ) আমলী আদালতের বিচারক মোহাম্মদ আনোয়ার-উল কবির মামলার বাদী আঁখি আক্তারের আবেদনের পরিপেক্ষিতে এ আদেশ প্রদান করেন। আদালতের এমন রায়ে আঁখি আক্তার সন্তোষ প্রকাশ করেছেন।
মামলার বিবরণ সূত্রে জানা যায়, গত ২৮ নভেম্বর ২০২১ইং (রবিবার) বিকেলে ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচনী চলাকালীন সময় যুবলীগ নেতা মাসুদ আলমকে পিটিয়ে হত্যা করা হয়। ঘটনার ২ দিন ৩০ নভেম্বর (মঙ্গলবার) ২০২১ইং মাসুদের স্ত্রী আঁখি আক্তার বাদী হয়ে ১৯ জনের বিরুদ্ধে রামগঞ্জ থানায় একটি হত্যা মামলা দায়ের করেন। রামগঞ্জ থানা মামলা নং ২৪, তারিখ-৩০/১১/২০২১ইং। এরপর হত্যা মামলাটি তদন্তের জন্য থানার এসআই সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন কে দায়িত্ব দেওয়া হয়।
দীর্ঘ ৫ মাস তদন্ত শেষে এসআই দেলোয়ার হোসেন প্রধান আসামীসহ এজাহার ভুক্ত অনেক আসামীকে বাদ দিয়ে চলতি বছরের ২৪ এপ্রিল তদন্ত রির্পোট আদালতে দাখিল করে। এতে প্রধান আসামীকে বাদ দেওয়ায় ওই রিপোর্ট নারাজি দিয়ে পূর্ন তদন্তের জন্য আবেদন করে। আদালত আবেদন গ্রহন করে অধিকতর তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই) নোয়াখালীকে আদেশ প্রদান করেন।
মামলার বাদী আঁখি আক্তার জানান, আমার স্বামী মাসুদ নিহতের পর আমি বেশ কয়েকমাস অসুস্থ ছিলাম। থানায় মামলা করার পর ৫ মাস ধরে পুলিশ তদন্ত করেছেন। কিন্তু একবারও বাদীর সাথে কোন যোগাযোগ অথবা কোন খোঁজ খবর পর্যন্ত নেননি। পুলিশ প্রধান আসামীসহ হত্যা সাথে অনেক আসামী নাম বাদ দিয়েছেন এজন্য আমি পুলিশের তদন্ত রিপোর্টের বিরুদ্ধে নারাজির আবেদন করি। আদালত আমার আবেদন গ্রহন করে পিবিআইকে পূর্ন তদন্তের জন্য দেন।
মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা রামগঞ্জ থানার এসআই সৈয়দ দেলোয়ার হোসেন জানান, নিয়ম অনুযায়ী তদন্ত রিপোর্ট আদালতে দাখিল করেছি। বাকীটা আদালতের বিষয়। এর চেয়ে আমি বেশী কিছু জানিনা। নারাজির বিষয়ে আদালতের কোন কাগজপত্র হাতে পাইনি।
লক্ষ্মীপুর আদালতের আইনজীবি মোঃ খোরশেদ আলম ও কবির হোসেন মোল্লা জানান, ইউনিয়ন পরিষদ নির্বাচন সহিংসতায় মাসুদ হত্যা মামলার বাদীর আবেদনের পেক্ষিতে মহামান্য আদালত রামগঞ্জ থানা পুলিশের দাখিল করা তদন্ত রিপোর্ট বাতিল করে অধিকতর তদন্তের জন্য পুলিশ ব্যুরো ইনভেষ্টিগেশন (পিবিআই) নোয়াখালীকে পুনঃ তদন্তের জন্য আদেশ প্রদান করেছেন।