Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

সাংবাদিক রুবেলকে আইসিটি মামলার হুমকি যুবলীগ নেতার


প্রকাশের সময় : ১১ মাস আগে
সাংবাদিক রুবেলকে আইসিটি মামলার হুমকি যুবলীগ নেতার

প্রতিনিধি : সংবাদ প্রকাশ করার জের ধরে জনপ্রিয় অনলাইন নিউজ পোর্টাল ঢাকা মেইলের লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি মো. রুবেল হোসেনকে মুঠোফোনে ডিজিটাল নিরাপত্তা আইন (আইসিটি) মামলার হুমকি দিয়েছেন, রামগতি উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক শাহ্ মো. রাকিব। সোমবার (১৭ জুলাই) রাত ৮টা ৫৬ মিনিটে যুবলীগ নেতা শাহ্ মো. রাকিব তার ব্যবহৃত মুঠোফোন নম্বর থেকে সাংবাদিক রুবেলকে কল দিয়ে আইসিটি মামলাসহ বিভিন্নভাবে হুমকিস্বরূপ কথাবার্তা বলেন। তাৎক্ষণিক সাংবাদিক রুবেল বিষয়টি রামগতি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. আলমগীর হোসেন ও জেলার পুলিশ সুপার মাহফুজ্জামান আশরাফকে অবহিত করেন।
সম্প্রতি রামগতির ভুলুয়া নদী থেকে অবৈধ ডেজার মেশিন বসিয়ে বালু উত্তোলন করেন রাকিব ও তার অনুসারীরা। বিষয়টি লক্ষ্মীপুর জেলা প্রশাসক মো. আনোয়ার হোছাইন আকন্দের দৃষ্টিগোচর হলে তিনি রামগতি উপজেলা প্রশাসনকে নির্দেশ দেন প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নেওয়ার জন্য। এর পরের দিন শুক্রবার (৭ জুলাই) রামগতি উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) আমজাদ হোসেন ভ্রাম্যমাণ আদালত পরিচালনা করেন। চরগাজী ইউনিয়নের বয়ারচরের শেখ রাসেল ব্রিজ এলাকার অদূরে ভুলুয়া নদীতে। এ সময় বালু উত্তোলনের পাইপ ভেঙে বিনষ্ট করা হয়। ঘটনাস্থলে কেউ না থাকায় কাউকে আটক করা সম্ভব হয়নি।
এরপর বুধবার (১২ জুলাই) সন্ধ্যা জেলা প্রশাসকের সঙ্গে কথা বলে “যুবলীগ নেতার বালু বাণিজ্য গুঁড়িয়ে দিল প্রশাসন” এমন শিরোনামে ওই-রাতে ঢাকা মেইলে একটি সংবাদ প্রকাশ হয়। এতে ব্যাপক আলোচনা-সমালোচনা সৃষ্টি হয় রামগতি উপজেলা জুড়ে।
সাংবাদিক রুবেল হোসেন জানান, হঠাৎ সোমবার রাত ৮ টা ৫৬ মিনিটে রামগতি উপজেলা যুবলীগের যুগ্ম-আহ্বায়ক শাহ্ মো. রাকিব তার ব্যবহৃত মোবাইল নম্বর থেকে কল দিয়ে জানতে চান তার বিরুদ্ধে যে নিউজ করা হয়েছে। ভুলুয়া নদী থেকে বালু উত্তোলনের বিষয় কি তথ্য আছে। এবং কত টাকার বিনিময়ে তার বিরুদ্ধে এ নিউজ করা হয়েছে। একপর্যায়ে উচ্চস্বরে যুবলীগ নেতা রাকিব বলে ভুয়া নিউজ করার কারণে আপনার (সাংবাদিক রুবেল) বিরুদ্ধে আইসিটি আইনে মামলা করা হবে। আপনি জানেন লক্ষ্মীপুর থেকে যত সাংবাদিক রামগতি আসে, আমি সবাইকে সম্মানী দিয়ে থাকি। আজ পর্যন্ত কেউ আমার বিরুদ্ধে নিউজ করার সাহস পায়নি। রামগতিতে কেউ আমার বিরুদ্ধে একটি অভিযোগ দিতে পারবে না।
লক্ষ্মীপুর অনলাইন সাংবাদিক ফোরামের সভাপতি, কালের কন্ঠ ও জাগো নিউজের লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি কাজল কায়েস বলেন, দুর্নীতিবাজ ও অপরাধীরা সবসময় নিজেদের পরিচ্ছন্ন ব্যক্তি ভাবেন। তাদের বিরুদ্ধে সংবাদ করলে, তারা চোখ রাঙ্গাতে থাকে সাংবাদিকদের। এতে করে তারা মনে করে সাংবাদিকরা ভয়ে লেখনী বন্ধ রাখবে। তারা কথায়-কথায় সাংবাদিকদের আইসিটি মামলার হুমকি দেয়। একজন সংবাদকর্মী তার লেখনীর মাধ্যমে সমাজের ভাল-মন্দ তুলে ধরবে এটাই দায়িত্ব। ঠিক সাংবাদিক রুবেল তার লেখনীর মাধ্যমে যুবলীগ নেতা রাকিবের বালু উত্তোলন বানিজ্য গুঁড়িয়ে দিল প্রশাসন। এ নিউজ করার কারণে যুবলীগ নেতা রাকিব মোবাইল ফোনে সাংবাদিক রুবেলকে আইসিটি আইনে মামলার হুমকি দেয়। আমরা অনলাইন সাংবাদিক ফোরাম এ হুমকির তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানাচ্ছি।
লক্ষ্মীপুর প্রেস ক্লাবের সাধারণ সম্পাদক সাইদুল ইসলাম পাবেল তীব্র নিন্দা ও প্রতিবাদ জানিয়ে, আদালতে যুবলীগ নেতা রাকিবের বিরুদ্ধে মামলার প্রস্তুতি নেওয়ার পরামর্শ দেন সাংবাদিক রুবেলকে।
লক্ষ্মীপুর সরকারি কলেজের সাবেক অধ্যক্ষ ও সাংস্কৃতিক ব্যক্তিত্ব প্রফেসর মাঈন উদ্দিন পাঠান জানান, একজন কলম সৈনিক তার পেশাদারিত্ব জাগায় থেকে ন্যায়-অন্যায় তুলে ধরবে জাতির সামনে। তাই বলে তাকে হুমকি পেতে হবে এবং আইসিটি আইনে মামলার ভয় দেখাবে। এটি কোনভাবেই কাম্য নয়। প্রশাসন যদি বালু উত্তোলনের বিষয়টি সঠিক তদন্ত করত। তাহলে এসব দুর্নীতিবাজ ব্যক্তিরা, কিছুইতে এতবড় সাহস পেতো না সাংবাদিক রুবেলকে হুমকি দেওয়ার।
লক্ষ্মীপুর পুলিশ সুপার মাহফুজ্জামান আশরাফ জানান, হুমকির বিষয়টি সাংবাদিক রুবেল তাকে মোবাইল ফোনে জানিয়েছে। তাকে আদালত অথবা সংশ্লিষ্ট থানায় লিখিতভাবে জানাতে বলছেন পুলিশ সুপার।