Ad Space 100*120
Ad Space 100*120

১৫০০ পিস ইয়াবা রাখার লক্ষ্মীপুরে এক যুবকের ১০ বছরের কারাদণ্ড


প্রকাশের সময় : ১১ মাস আগে
১৫০০ পিস ইয়াবা রাখার লক্ষ্মীপুরে এক যুবকের ১০ বছরের কারাদণ্ড

লক্ষ্মীপুর প্রতিনিধি: লক্ষ্মীপুরে বিক্রির উদ্দেশ্যে ১৫০০ পিস ইয়াবা ট্যাবলেট রাখার দায়ে মো. ছালাম (৩০) নামে এক যুবকের ১০ বছরের সশ্রম কারাদণ্ড দিয়েছে আদালত। একই সঙ্গে ১০ হাজার টাকা জরিমানা ও অনাদায়ে আরও ৬ মাসের কারাদণ্ডের আদেশ দেওয়া হয়। সোমবার (৩ এপ্রিল) দুপুরে জেলা ও দায়রা জজ আদালতের বিচারক মো. রহিবুল ইসলাম এ রায় দেন। এ মামলায় অভিযোগ প্রমাণিত না হওয়ায় রফিকুল ইসলাম ওরফে বার্মাইয়া রফিককে খালাস দিয়েছে আদালত।
লক্ষ্মীপুর জজ আদালতের সরকারি কেঁৗসুলি (পিপি) জসিম উদ্দিন বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। তিনি বলেন, আসামি ছালামের বিরুদ্ধে অভিযোগ প্রমাণিত হয়েছে। আসামি জামিনে গিয়ে পলাতক রয়েছে। রায়ের সময় তিনি আদালতে উপস্থিত ছিলেন না।দণ্ডপ্রাপ্ত ছালাম কক্সবাজার জেলার চৌফলদন্ডী ইউনিয়নের মাইজপাড়া গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে। খালাসপ্রাপ্ত রফিক একই ইউনিয়নের দক্ষিণপাড়া গ্রামের বাসিন্দা।
আদালত ও এজাহার সূত্র জানা যায়, ২০১৮ সালের ৩০ অক্টোবর বিকেলে লক্ষ্মীপুরের দালাবাজার এলাকায় চেকপোস্টে একটি সিএনজি চালিত অটোরিকশা থামানের সংকেত দেয় পুলিশ। এসময় অটোরিকশাটির পেছন সিটে বসে থাকা অভিযুক্ত ছালাম ও রফিক নেমে পালানোর জন্য দেঁৗড় দেয়। তাৎক্ষণিক ছালামকে আটক করা হয়। তবে রফিক পালিয়ে যায়। পরে ছালামের দেহ তল্লাশী করে ১৫০০ পিস ইয়াবা উদ্ধার করা হয়। একইদিন লক্ষ্মীপুর সদর মডেল থানার পিএসআই আবু নাছের বাদী হয়ে ছালাম ও রফিকের বিরুদ্ধে মাদক নিয়ন্ত্রণ আইনে মামলা দায়ের করেন। ২০১৯ সালের ৭ মার্চ মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও সদর মডেল থানার উপ—পরিদর্শক (এসআই) আবু মুছা অভিযুক্ত দুইজনের বিরুদ্ধেই আদালতে অভিযোগপত্র দাখিল করেন। দীর্ঘ শুনানি ও সাক্ষ্যগ্রহণ শেষে আদালত এ রায় দেয়।